ট্রাফিক প্যাকেজ

প্যাকেজট্রাফিকের ধরনসার্ভিস চার্জপ্যাকেজের মেয়াদ
BasicWorldwide৮০০ টাকা২৫ দিন
StandardUSA and Canada১৪০০ টাকা২৫ দিন
PremiumUSA, Canada and Top European Countries২০০০ টাকা২৫ দিন

এক নজরে আমাদের ওয়েবসাইট ট্রাফিক সার্ভিস

  • ৬০০০ এর অধিক ট্রাফিক ক্যাম্পেইনের মেয়াদ পর্যন্ত।
  • Direct এবং SEO Friendly ট্রাফিক।
  • শতভাগ Adsense SAFE  ট্রাফিক।
  • সিপিএ/অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং, ল্যান্ডিং পেইজ, ব্লগ  ইত্যাদির জন্য এই ট্রাফিক সার্ভিস ব্যবহার করা যাবে। শুধুমাত্র YouTube, AdF.ly/LinkBucks এবং Fiverr এর লিংক গ্রহণ করা হয় না।
  • কাজের রিপোর্ট হিসেবে Custom Tracking URL প্রদান করা হয় যার মাধ্যমে আমাদের সরবরাহকৃত ট্রাফিক ট্র্যাক করা যাবে। পাশাপাশি গ্রাহকের গুগল অ্যানালাইটিকস অথবা ওয়েবসাইটের থার্ড পার্টি অ্যানালাইটিকসের মাধ্যমেও ট্রাফিক ট্র্যাক করা যাবে।

আমাদের মাধ্যমে সার্ভিস গ্রহন করার নিয়মাবলী

১ম ধাপঃ অর্ডারটির ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো

গ্রাহক কি ধরনের ল্যান্ডিং পেইজ বা ওয়েবসাইটের জন্য সার্ভিসটি নিবে, কোন প্যাকেজটি নিবে ইত্যাদিসহ সম্পূর্ন ব্যাপারে আমাদের বিস্তারিত অবগত করবে।

২য় ধাপঃ টাকা পাঠানো

প্যাকেজের নির্ধারিত সার্ভিস চার্জ আমাদেরকে bKash/Rocket/Bank এ অগ্রিম পাঠাতে হবে। টাকা পাঠানোর পর তার প্রাপ্তি নিশ্চিত করার জন্য অবশ্যই প্রয়োজনীয় প্রামানিক তথ্য যেমন- প্রেরকের bKash/Rocket নম্বরের শেষ ডিজিট বা Trx ID বা ব্যাংক জমার স্লিপের ছবি পাঠাতে হবে।

৩য় ধাপঃ রিপোর্ট গ্রহন

টাকা পাঠানোর পর সর্বনিম্ম ৬ ঘন্টা অথবা সর্বোচ্চ ২৪ ঘন্টা (সাপ্তাহিক ছুটি, অর্ডারের সিরিয়াল বেশি হলে অথবা অন্য কোন বিশেষ কারনে) এর মধ্যে গ্রাহককে ক্যাম্পেইন শুরু করার নিশ্চিতকরন রিপোর্ট হিসেবে Custom Tracking URL দেওয়া হবে যার মাধ্যমে গ্রাহক আমাদের সরবরাহকৃত ট্রাফিক ট্র্যাক করতে পারবে।

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট

bKash Merchant Account

ব্যাংক একাউন্ট

Bank Name: Eastern Bank Ltd.

Beneficiary Name: AD Seventy One

A/C: 134 107 004 3018

প্রশ্ন-উত্তর/জিজ্ঞাসা

১। আচ্ছা আপনারা কীভাবে এই ট্রাফিক সরবরাহ করছেন/কেন এই ট্রাফিক FAKE না?

উত্তরঃ বিভিন্ন ওয়েব মাস্টার, ডোমেইন রেজিস্ট্রারার এবং ওয়েব হোস্টিং কোম্পানিগুলোর সাথে আমাদের সংশ্লিষ্ট ডিপার্টমেন্টের একটি বিশেষ আর্থিক চুক্তি আছে। পাশাপাশি নিজেদের মালিকানাধীন কিছু High ট্রাফিক সাইটও আছে। সব মিলিয়ে ধরলে হাজারখানেকেরও বেশি ওয়েবসাইট গুলোকে আমরা এই সার্ভিসের জন্য কাজে লাগাচ্ছি। অর্ডার কনফার্ম হওয়ার পর প্রথমে আমরা গ্রাহকের দেওয়া ল্যান্ডিং পেইজ বা ওয়েবসাইট টি নিশ অনুযায়ী এক বা একাধিক ক্যাটাগরির মধ্যে ফেলি। এরপর ঐ এক বা একাধিক ক্যাটাগরিগুলোর আওতাধীন ওয়েবসাইট গুলোর ভিজিটরদেরকে রিডাইরেক্ট টেকনোলজি ব্যবহার করে গ্রাহকের ল্যান্ডিং পেইজ বা ওয়েবসাইটে পাঠানো হয়।

একটা উদাহরন দেই তাহলে আরো পরিষ্কার বুঝবেন। ধরুন কেউ গুগলে “website traffic service” এই কিওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করলো। এখন সার্চ রেজাল্ট থেকে ঐ ব্যক্তি আমাদের আওতাধীন কোন একটা ওয়েবসাইটে প্রবেশ করলো। তখন আমাদের রিডাইরেক্ট টেকনোলজি ঐ ওয়েবসাইটের বদলে গ্রাহকের ল্যান্ডিং পেইজ বা ওয়েবসাইট টি প্রদর্শন করলো। এই রিডাইরেকশনটি কোন কনটেন্ট প্রদর্শন করার আগে হয় বলে ভিজিটর টেরও পায় না পুরো ব্যাপারটা। তার মানে সেকেন্ডেরও কম মিলি সেকেন্ডেই খেল খতম!

২। এই ভিজিটরগুলো কি টার্গেটেড হয়?

উত্তরঃ আমরা যখন গ্রাহকের ল্যান্ডিং পেইজ বা ওয়েবসাইটকে কোন ক্যাটাগরির মধ্যে ফেলি তখন ঐ ক্যাটাগরির আওতায় থাকা আমাদের ওয়েবসাইট গুলো গ্রাহকের ল্যান্ডিং পেইজ বা ওয়েবসাইটের নিশের সাথে পুরোপুরি মিলতে পারে অথবা আংশিক মিলতে পারে। সুতরাং ভিজিটরগুলো একেবারে টার্গেটেড বলা যাবে না আবার আনটার্গেটেড হিসেবে গন্য করাও ঠিক হবে না।

৩। আমি কীভাবে বুঝবো আপনাদের দেওয়া ট্রাফিক একবারে REAL, কোন FAKE না?

উত্তরঃ গ্রাহক চাইলে UTM  Tag ব্যবহার করে গুগল অ্যানালাইটিকসে আমাদের সরবরাহকৃত ট্রাফিকের উৎস নিয়ে অ্যানালাইসিস করতে পারে। FAKE ট্রাফিক চেনার কয়েকটি নিদর্শন রয়েছে। যেমন –

  • যে ভিজিটরগুলো ন্যাচারালি আসে ওগুলো হয় বাসা বা অফিসে নেওয়া ব্রডব্যান্ড আইএসপি সার্ভিস থেকে আসছে অথবা কোন মোবাইল ক্যারিয়ারের নেটওয়ার্ক থেকে আসছে। অপরদিকে FAKE ট্রাফিক কোন নির্দিষ্ট ওয়েব হোস্টিং সার্ভার, প্রক্সি সার্ভার অথবা ডাটাসেন্টার থেকে পাঠানো হয়। গুগল অ্যানালাইটিকসে এটা চেক করতে এভাবে অনুসরন করুনঃ Technology=>Network of Google Analytics’ report
  • FAKE ট্রাফিক অ্যানালাইসিস করলে দেখা যাবে এদের উৎস হিসেবে একটি নির্দিষ্ট লোকেশনকে বেশি দেখাচ্ছে। অপরদিকে যে ভিজিটরগুলো ন্যাচারালি আসে সেগুলো অ্যানলাইসিস করলে দেখা যাবে এদের উৎস হিসেবে বিভিন্ন লোকেশন দেখাচ্ছে।
  • ন্যাচারালি আসা ভিজিটরগুলোর জন্য গ্রাহকের ওয়েবসাইটের Bounce Rate কখনো ১০০% হবে না অথবা ওয়েবসাইটের Time Spent জিরো হবে না। কারন ভিজিটর তখনই গ্রাহকের ওয়েবসাইট থেকে বের হয়ে আসবে যখন সে ইন্টারেস্টিং কিছু পায় নি অথবা যেটার জন্য এসেছিলো সেটা সে খুজে পায় নি অথবা পেয়েছে তাই কাজ শেষ করার পর বের হয়ে গিয়েছে। সুতরাং এ সকল ফ্যাক্টরের কারনে Bounce Rate একেক সময় একেক রকম হবে আবার ওয়েবসাইটের Time Spent একেক সময় একেক রকম হবে।

৪। আমি কি কোন অ্যাফিলিয়েট লিংক/অ্যাডাল্ট কন্টেন্ট প্রমোট করতে পারবো?

উত্তরঃ হ্যা পারবেন। অ্যাফিলিয়েট লিংক যদি URL Shortener সাইট ব্লক না করে তবে সেটার Custom Tracking URL দেওয়া যাবে। যেমন ClickBank এর অ্যাফিলিয়েট লিংকে এই সমস্যাটা হয়। আর অ্যাডাল্ট কন্টেন্টের ক্ষেত্রে সেটা যদি আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন না করে তবে সমস্যা নেই। যেমন শিশু পর্নোগ্রাফি এক ধরনের অপরাধ।

৫। এই ট্রাফিক সার্ভিসের মাধ্যমে আমি কি অ্যাডসেন্স অথবা কোন অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম থেকে আয় করতে পারবো?

উত্তরঃ গ্রাহক হয়তো এই ট্রাফিক সার্ভিস হতে প্রোডাক্ট সেল অথবা অন্য কোন আর্থিক সুবিধা পেতে পারে, তবে এর কোন গ্যারান্টি আমরা দিতে পারবো না। কারন ন্যাচারাল ট্রাফিক হওয়ার কারনে ভিজিটরদের কর্মকান্ড কন্ট্রোল করা সম্ভব নয়। তাছাড়া গ্রাহকের দিক থেকে কন্টেন্ট অপ্টিমাইজেশন এবং অন্য কোন টেস্টিং না করলে আমাদের এই ট্রাফিক সার্ভিস কাজে নাও লাগতে পারে।

নীচে একজন ক্লাইন্টের Adsterra নামের একটা নামকরা Ad Network থেকে আমাদের ট্রাফিক সার্ভিস ব্যবহার করে ইনকাম করার স্ক্রিনশট দেওয়া হলঃ

Adsterra

৬। আমার শুধু বাংলাদেশী ট্রাফিক লাগবে। আপনারা কি তা দিতে পারবেন?

উত্তরঃ দুঃখিত এই মূহুর্তে এটা সম্ভব হচ্ছে না। তবে আমরা ভবিষ্যতে চেষ্টা করবো শুধুমাত্র কোন নির্দিষ্ট দেশের ভিজিটর দেওয়া যায় কিনা। তবে বাংলাদেশী ট্রাফিকের জন্য আপনি ফেসবুকের অ্যাড ব্যবহার করতে পারেন। বর্তমানে মোটামুটি সস্তায় ফেসবুকে অ্যাড দিয়ে ভাল পরিমান বাংলাদেশী ট্রাফিক আনা যায়। তাছাড়া আমাদের এই ট্রাফিক সার্ভিসটি মূলত তাদের জন্য যাদের বাংলাদেশের বাইরে অন্য কোন দেশ টার্গেটিং করে ফেসবুক অথবা গুগলে অ্যাড দিলে অনেক বেশি খরচ পড়ে।

৭। আচ্ছা আমি যদি আপনাদের সার্ভিসে সন্তুষ্ট না হই সেক্ষেত্রে আপনাদের করনীয় কী?

উত্তরঃ সার্ভিস সংক্রান্ত যে কোন সমস্যায় নির্দিধায় আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আমরা সর্বাত্তক চেষ্টা করবো আপনার সমস্যার সমাধান করার। যদি একেবারেই সমস্যার সমাধান করা সম্ভব না হয় তবে আপনার টাকা Refund করা হবে। কিন্তু হ্যা আমাদের সরবরাহকৃত ট্রাফিক থেকে কোন প্রোডাক্ট সেল হয় নাই অথবা কোন আর্থিক সুবিধা অর্জন করতে পারেন নাই বলে টাকা ফেরত চাচ্ছেন এমন কোন আবদার মানা হবে না। কারন উপরে একবার বলেই দেওয়া হয়েছে এই  ট্রাফিক সার্ভিসের মাধ্যমে প্রোডাক্ট সেল অথবা কোন আর্থিক সুবিধা পাওয়ার গ্যারান্টি আমরা দেই না।